ছাগলের পেট থেকে জন্ম নীল এটা কিসের বাচ্চা? দেখতে এলাকাবাসির ভিড়!

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার নাওগাঁও শিবপুর গ্রামে ছাগলের পেট থেকে জন্ম নিয়েছে এক এঁড়ে বাছুর! আজ রবিবার দুপুরে শিবপুর গ্রামের শুকুর মাহমুদের ব্লাক বেঙ্গল ছাগলটি দেখতে অদ্ভুত এই বাচ্চাটির জন্ম দিয়েছে।

‘ছাগলের পেট থেকে গরুর বাচ্চা হয়েছে’ এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার শত শত উৎসুক মানুষ প্রাণিটিকে দেখতে ভিড় জমায় তার বাড়িতে। জানা গেছে, ছাগলটি প্রতি বছর দুই বার করে বাচ্চা প্রসব করে। প্রতি বার তিন থেকে চারটি করে বাচ্চা দেয়।

আজ রবিবার ব্লাক বেঙ্গল ছাগলটি দুটি বাচ্চা প্রসব করার প্রায় এক ঘণ্টা পর আরেকটি বাচ্চা প্রসব করে। তৃতীয় বাচ্চাটি অনেকটা বড় ও দেখতে গরুর বাছুরের মতো হয়। প্রাণিটির শরীরে কোনো লোম নেই, একটি কান ও একটি বড় চোখ রয়েছে। মুখ, কান, লেজ ও চারটি পা ও খুর দেখতে অনেকটা গরুর এঁড়ে বাছুরের মতো।

শুকুর মাহমুদ বলেন, ছাগলটি দুটি বাচ্চা প্রসব করার পর তিন নম্বর বাচ্চাটি দেখতে অনেকটা গরুর ষাড় বাছুরের মতো হয়েছে। অন্য দুটি বাচ্চা বেঁচে থাকলেও জন্মের প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর অদ্ভুত বাচ্চাটি মারা গেছে। এ নিয়ে ছাগলটি চার বার বাচ্চা প্রসব করল।

উপজেলা ভেটরিনারি সার্জন কনিকা সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, হরমোনজনিত কারণে ব্লাক বেঙ্গল ছাগলটি গরুর বাছুরের মতো দেখতে বাচ্চা প্রসব করেছে। জেনেটিক সমস্যা হলে অন্য দুটি ছাগলের বাচ্চা সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *